বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৭ নভেম্বর ২০১৯

প্রশিক্ষণ কার্যক্রম

বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের অন্যতম লক্ষ্য হলো ‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‘‘মানব সম্পদ উন্নয়ন ও দারিদ্র্য বিমোচন”।  সে লক্ষ্যকে সামনে রেখে বিটাক তার প্রশিক্ষণ কর্মসূচির মাধ্যমে দক্ষ জনবল সৃষ্টি করে মানব সম্পদ উন্নয়ন, দেশের অভ্যন্তরে আত্ম-কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে  যাচ্ছে ।

কারিগরি জ্ঞানসম্পন্ন দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি ও শিল্প ক্ষেত্রে নিয়োজিত জনবলের কারিগরি দক্ষতার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে বিটাক বছরে ১২টি ট্রাডিশন্যাল ট্রেডে ১৪ সপ্তাহব্যাপি এবং ১৫টি ট্রেডে ১-২-৩-৪-৬ সপ্তাহব্যাপি স্বল্প ও মধ্য মেয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্স পরিচালনা করে থাকে । উল্লেখ্য অংশীজনের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মেয়াদে কাস্টমাইজড্ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে।

এছাড়া, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি/বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, টেকনিক্যাল টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এবং টিটিসি/টিএসসি/ভিটিআইসহ বিভিন্ন কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  শিক্ষার্থীরা প্রতি বছর বিটাক হতে বাস্তব প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে থাকে।

বিটাকের প্রশিক্ষণে বিশেষতঃ লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস্ এ আন্তজার্তিক মানে মার্কেট চাহিদা অনুযায়ী বাস্তবমুখী কোর্স কারিকুলাম অনুসরণ করা হচ্ছে বিধায় প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থী প্রশিক্ষণ শেষে স্বস্ব কর্মক্ষেত্রে  তাদের প্রশিক্ষণলদ্ধ জ্ঞান ও দক্ষতা কাজে লাগিয়ে দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

বিটাক হতে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত যুবপুরুষ/মহিলার বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় বৈদেশিক নিয়োগের মাধ্যমে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনেও বিটাক সহায়ক ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।

প্রশিক্ষণার্থীদের আবাসনের জন্য, ঢাকায় নারীদের জন্য একটি ৫তলা ও পুরুষদের জন্য একটি ৩তলা,  চট্টগ্রাম কেন্দ্রে পুরুষদের জন্য ২তলা,  খুলনা  ও বগুড়া কেন্দ্রে পুরুষদের জন্য  ১তলা ডরমিটরী  ভবন রয়েছে।


Share with :

Facebook Facebook